ঝিনাইদহে স্ত্রী সন্তানকে ফিরে পেতে সংবাদ সম্মেলন

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি-
ঝিনাইদহে স্ত্রী সন্তান ফিরে পেতে বিকাশ চন্দ্র নামে এক অসহায় স্বামী সংবাদ সম্মেলন করেছেন। সে সদর উপজেলার পন্ডিতপুর গ্রামের মৃত বিনয় বিশ্বাসের ছেলে। সোমবার (২১আগস্ট) বেলা ১২টার দিকে ঝিনাইদহ প্রেস ইউনিটি কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন করেন। এসময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন, মা মালঞ্চি রানী, ভাই আকাশ বিশ্বাস, শ্বশুর প্রদীপ কুমার মন্ডল ও মামাতো ভাই সঞ্জিত কুমার। এসময় তার সাত মাসের শিশু সন্তান ও স্ত্রীকে ফিরে পাওয়ার দাবি জানান তিনি। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বিকাশ কুমার বিশ্বাস জানান, গত ৩০ শে জুলাই বিকাল পাঁচটার দিকে শিশু পুত্রকে নিয়ে আমার স্ত্রী পন্ডিতপুর থেকে কলমনখালী যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয়। সেখান থেকে স্থানীয় অসীমের সহযোগিতায় পার্বন ও তার ভাই পারভেজ আমার স্ত্রী চৈতি বিশ্বাস ও সাত মাসের শিশু পুত্রকে উঠিয়ে নিয়ে চলে যায়। পার্বন জেলার শৈলকূপা উপজেলার কাচের খোল ইউনিয়নের ছাদেকপুর গ্রামের সন্তান। ঘটনা জানার পর থেকে বিভিন্ন জায়গায় খুঁজে না পেয়ে গত ৩১শে জুলাই ঝিনাইদাহ সদর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করি। তিনি বলেন, থানায় অভিযোগ দেওয়ার আজ ২২ দিন অতিবাহিত হয়ে গেলেও আমি জানতে পারি নাই আমার স্ত্রী পুত্র কোথায় আছে। তিনি বলেন, এ বিষয়ে পুলিশ প্রশাসনের নীরবতা আমাদেরকে ভাবিয়ে তুলেছে যে, আমরা কয়েক দফায় থানায় গিয়েছি কিন্তু থানার পুলিশ আমাদের কথায় কোন কর্নপাত দিচ্ছে না । এছাড়াও আমার স্ত্রী সন্তানকে তুলে নিতে স্থানীয় যে অসীম সহযোগিতা করেছে সেই অসীম এখনো গ্রামে ঘুরে বেড়াচ্ছে। অথচ পুলিশ তাকে গ্রেফতার করলেই আমার স্ত্রী সন্তানের খোঁজ বেরিয়ে আসতো। তিনি বলেন, আমরা সাংবাদিকদের মাধ্যমে এ বিষয়ে দেশবাসী এবং প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানাতে চাই, যাতে আমি আমার স্ত্রী সন্তানকে দ্রুত ফেরত পেতে পারি। সেই সাথে যে তাকে তুলে নিয়ে গেছে, তার যথপযুক্ত বিচার চেয়ে স্ত্রী সন্তানের মায়ায় কান্নায় ভেঙে পড়েন বিকাশ চন্দ্র। এবিষয়ে ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি মোঃ সোহেল রানা বলেন, আমাদের এখানে অভিযোগ পাওয়ার পর থেকে আমরা চৈতি বিশ্বাস ও তার শিশুসন্তানকে উদ্ধারের ব্যাপারে প্রাণপণ চেষ্টা করে যাচ্ছি। আশা রাখি খুব দ্রুতই চৈতি বিশ্বাসকে তার স্বামীর নিকট ফেরত দিতে পারব। সাংবাদিক সম্মেলনে ঝিনাইদহ প্রেস ইউনিটির সভাপতি সাহিদুল এনাম পল্লবসহ অন্যান্য সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন

YOUR COMMENT